২৫ লক্ষ মানুষের সমাগম হয়েছে সাগরে : সুব্রত মুখোপাধ্যায়




নিজস্ব প্রতিনিধি, গঙ্গাসাগর : বেলা বাড়তেই জনস্রোত আছড়ে পড়লো সাগরে আজ ও সকালে চলবে স্নান
প্রশাসনের পরিসংখ্যান এবং রাজ্যের মন্ত্রীদের দাবি  ইতিমধ্যে প্রায় ২৫ থকে ২৬ লক্ষাধিক পূর্ণ্যাথী সাগরে এসে পোঁছেছেন। অথবা মেলা থেকে স্নান সেরে ফিরে ও গেছেন। পুরো মেলা পরিচালনার জন্য সাগরে উপস্থিত আছেন রাজ্যের তিন জন মন্ত্রী। পুরো মেলা তদারকির জন্য উপস্থিত আছেন মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় ও যুব কল্যান মন্ত্রী অরুপ বিশ্বাস এবং বিদুৎ মন্ত্রী শোভন দেব চট্টোপাধ্যায় । সাগর মেলায় নজর দারির জন্য বাবুঘাট থেকে সাগরতট পর্যন্ত নজর দারির জন্য প্রায় আটশো সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো হয়েছে।সাত টি ড্রোন পাহারা দিচ্ছে। মেগা কন্ট্রোল রুম বানানো হয়েছে।প্রতিটা ছবি ড্রোনের ছবি ও ক্যামেরার ছবি পাঠানো হচ্ছে  এই কন্ট্রোল রুমে।জোয়ার ভাঁটার কারনে ভেসেল বা লঞ্চ পরিষেবা বন্ধ থাকলে তা বারবার জানানো হচ্ছে মাইকিং করে। বড় এলসিডি টিভিতে ভেসে উঠছে জোয়ার ভাঁটার সময়।
ইতিমধ্যে গঙ্গাসাগর মেলা কে কেন্দ্র করে এক জনের মৃত্যু হয়েছে। নামখানা থেকে ফেরিঘাটে আসার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে এই ব্যাক্তির মৃত্যু হয়েছে বলে জেলা প্রশাসনের দাবি।
এদিন সংবাদিক বৈঠকে মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় বলেন,ইতিমধ্যে প্রায় ২৫ লক্ষ তীর্থযাত্রী স্নান সেরে ফিরে গেছেন।পুন্যস্নান চলছে আরো মানুষ আসবেন। সুষ্ট ভাবে মেলা চলছে।ভারতের কোনোও মেলাতে এত ভালে ব্যবস্থা থাকে না। এদিন সাগরে কপিল মুনির মন্দিরে পূজা দেন অরুপ বিশ্বাস। স্নান সারেন শোভন দেব চট্টোপাধ্যায়।
কুম্ভ মেলাতে আগুন লাগানোর ঘটনা থেকে সাগর মেলার অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।মেলায় হাতসাফাই থেকে আইনবিরুদ্ধ কাজের জন্য চল্লিশ জন কে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সুন্দরবন জেলা পুলিশ সুপার তথাগত বসু।
Loading...
Powered by Blogger.