মদের ঠেকে বিপরীত চিত্র ক্যানিংয়ে




এক দল মেয়ে ঠেক গড়ছে এক দল ঠেক বানাচ্ছে মদ নিয়ে বিপরীত চিত্র ক্যানিংয়ে। এক দল মেয়ে গ্রামে মদ তুলে বাড়িতে রেখে ব্যবসা করছেন, আর  অন্য এক দল বাড়িতে  ঢুকে সেই সব মদের ঠেক ভাঁঙছে। আর তা নিয়ে এলাকার মহিলাদের  মধ্যে চলছে মারামারি।বিপরীত চিত্রের এই ঘটনা লক্ষ করা গেছে ক্যানিংয়ের দিঘীরপাড় গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। সোমবার এলাকায় গিয়ে দেখা গেল এক দল মহিলা এলাকার বাড়িতে বাড়িতে ঢুকে মদের ঠেক ভাঙছে। কেউ কেউ  আবার সেই ঠেক থেকে মদের বোতল সরিয়ে রাখছে।কারন মদের বোতলেই তাদের জীবিকা। মদ বিক্রি করেই মেলে মোটা অঙ্কের টাকা। স্থানীয় সূত্রে খবর, ক্যানিংয়ের বেশ কয়েক টি গ্রামে এখনো লুকিয়ে চুরিয়ে চলছে মদের ঠেক।শুধু দিঘীরপাড় এলাকায় নয় তালদি, নিকারীঘাটা, সাতমুখী সহ বিভিন্ন এলাকায় আছে এই সব ঠেক। যেখানে বহু বাড়িতে গজিয়ে উঠেছে এই ঠেক।বারবার প্রশাসন কে জানিয়েও কোনও কাজ হয় নি।এবিষয়ে ঠেক ভাঙতে আসা স্বরস্বতী মন্ডল বলেন, বাড়ির পুরুষরা এই সব ঠেক থেকে মদ কিনে খাচ্ছে। আর সেই মদ কিনে খাওয়ার ফলে এলাকায় বাড়চ্ছে অশান্তি।মদ খেয়ে বাড়িতে এসে বাড়ির জিনিসপত্র ভাঙচুর, মারধর সবই চলছে। কেউ কেউ অতিরিক্ত মদ সেবনের ফলে অসুস্থ হয়ে পড়ছে।         

এলাকার মানুষের দাবি বিভিন্ন সময় আবগারি দফতর কে জানানো হয়েছে তবে তাতে কাজের কাজ কিছুই হয় নি।এই সমস্ত এলাকায় বাংলা মদের ঠেক গুলি  চলছে যথারীতি রমরমিয়ে।স্থানীয় মদ বিক্রেতা বাসন্তী সরদার বলেন,আমরা মদ বিক্রির পয়সা একা খাই না। পুলিশ কে দিয়ে খাই।ব্যবসা যখন শুরু করি তখন পাঁচ হাজার টাকা দিয়েছিলাম আবগারি দফতর কে। থানা কে পাঁচশো টাকা করে মাসোহারা দিই। আদিবাসীরা মদ খাবেই।আমাদের সমাজে মদ না হলে বিয়ে হয় না।

মদের ঠেক ভাঙতে এলাকায় একজোট হয়েছে সব মহিলারা। অন্যদিকে ঠেক বাঁচাতে এক হয়েছে আদিবাসী মহিলারা। মহিলাদের তল্লাশিতে বিভিন্ন বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে বেশ কয়েক শো মদের বোতল। সেই মদের বোতল বিভিন্ন বাড়িতে থেকে বের করে আনতে গিয়ে বাধা পান মদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদকারি মহিলারা। মদেরঠেক চালানো ও প্রতিবাদ কারি মহিলাদের মধ্যে এদিন বেশ কয়েক দফায় ধস্তাধস্তি ও বাধে।উদ্ধার হওয়া মদের বোতল গুলি ঠেক থেকে বাইরে বের করে এনে রাস্তায় ফেলে পা দিয়ে মাড়িয়ে প্রতিবাদ জানান। মহিলারা জানান এলাকায় মদের ঠেক এরপরও বন্ধ না হলে আবগারি অফিসে গিয়ে বিক্ষোভ দেখানো হবে। আমরা চাই এলাকা থেকে মাদের সমস্ত ঠেকে বন্ধ হয়ে যাক।       
Loading...
Powered by Blogger.