মৎস্য চাষীদের নিয়ে বার্ষিক সম্মেলন



ময়না: ময়না ফিশারী এসোসিয়েশনের উদ্যোগে মৎস্য চাষীদের নিয়ে বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।মঙ্গলবার ময়না রামকৃষ্ণায়ন এসোসিয়েশন ময়দানে আয়োজিত সম্মেলনে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদের সভাধিপতি দেবব্রত দাস বলেন, "ময়না মৎস্য চাষে রাজ্যের মধ্যে মডেল হয়েছে।বলাইপণ্ডা থেকে দ্রুত খাল সংস্কার করা হবে।এখানে দুটো পাম্পিং স্টেশন বসানো হবে।এখানে মাছের উৎপাদন ভারত তথা বিশ্বের বাজারে ছড়িয়ে দিতে হবে।এন্টিবায়োটিক ব্যবহার না করে প্রবায়োটিক ব্যবহার করতে হবে।অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে কেন আমরা মাছ আনবো?" তিনি আরও বলেন, "ময়নাতে মাটির জল পরীক্ষা, খাওয়ার চেকিং'র প্রয়োজন রয়েছে।মাছ চাষিকে আর বেশি প্রশিক্ষিত হতে হবে।এখানে মাছের উৎপাদন শুল্ক বাড়াতে হবে।ময়না পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মাছ চাষের একটা হৃৎপিণ্ড।রাজ্য সরকারের উদ্দেশ্য আগামীদিনে ময়নাকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া।জেলার মুকুটে ময়না মৎস্য চাষে নতুন মডেল তৈরি হবে।"


এ দিনের সভায় রাজ্যের মৎস্য মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা বলেন, "রাজ্যের ১৫ টি জেলাতেই ময়েন মডেলে মাছ চাষ করা হচ্ছে।রাজ্যের মধ্যে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা মাছ চাষে প্রথম স্থানে রয়েছে।ময়নাতে অবিলম্বে কোল্ড স্টোরেজ, ল্যাবরেটরি গড়ে তোলা হবে।আমাদের লক্ষ্য দেশের মধ্যে মাছ চাষে পশ্চিমবঙ্গকে প্রথম স্থানে নিয়ে যাওয়া।" তাঁর কথায়, "মাছের উৎপাদন ময়নাতে আরও বাড়াতে।" সভায় ছিলেন জেলার মৎস্য কর্মাধ্যক্ষ আনন্দময় অধিকারী, ময়না ব্লক মৎস্য কর্মাধ্যক্ষ সুদর্শন জানা, জেলা সহ মৎস্য অধিকর্তা সুরজিৎ বাগ, ময়না পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি অভয়া দাস, জেলা পরিষদের কৃষি ও সেচ কর্মাধ্যক্ষ শেখ সাজাহান আলি, কাঁথি মহকুমা খটি মৎস্যজীবী উন্নয়ন সমিতির সম্পাদক লক্ষীনারায়ণ জানা, ময়নার ওসি স্বপন গোস্বামী, মদনমোহন মণ্ডল প্রমুখ।এ দিনের সভায় ময়নার কয়েক হাজার মৎস্য চাষিরা হাজির ছিলেন।
Loading...
Powered by Blogger.