১২ বছরের কিশোরীর যৌন আবেদন বাড়াতে বিয়ে করলেন ৬৩ বছরের বুড়ো পুরোহিত!

১২ বছরের কিশোরীর যৌন আবেদন বাড়াতে বিয়ে করলেন ৬৩ বছরের বুড়ো পুরোহিত!

পশ্চিম আফ্রিকার ঘানায় এক ৬৩ বছরের বুড়ো পুরোহিত ১২ বছরের এক কিশোরীকে বিয়ে করেছেন। আর তারপরই উসকে গিয়েছে বিতর্ক। নেটপাড়া জুড়ে চলছে ছিছিকার। শনিবার কাস্টমারি সেরেমনির মাধ্যমে ক্রওয়ার নুঙ্গুয়ায় পুরোহিত নুমো বোরকেটে লাওয়ে বিয়ে করেন সেই কিশোরীকে। যদিও এখন বিয়ে করলেও সেই নাবালিকার ৬ বছর বয়সেই তার এই ভবিতব্য ঠিক হয়ে গিয়েছিল। তখনই ঠিক করে রাখা হয় এই বুড়ো বরের সঙ্গেই তার বিয়ে হবে।

ঘানার স্থানীয় চ্যানেল অ্যাবলেডে এই বিয়ের বিস্তারিত ফুটেজ দেখানো হয়। সেটাই বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে এই বৃদ্ধের সঙ্গে কিশোরীর বিয়েতে তাঁদের গোষ্ঠীর অনেকে উপস্থিত রয়েছেন। কিন্তু অনেকে আবার বিরোধিতা করেছে এই ভিডিয়ো এবং কাজের।

কে কী বলছেন?

এক ব্যক্তি এই ফুটেজ দেখে লেখেন, ‘ স্ত্রী? শিশু বিবাহ অপরাধ বলেই ত জানি। ঘানাতেও সেই এক নিয়ম। কোনও নিয়ম রীতির জন্যই সেটাকে ভাঙা যায় না।’ কেউ আবার লেখেন, ‘এই দেশের অনেক কিছুই ভুল, আর এটা তার মধ্যে অন্যতম। ২০২৪ সালে দাঁড়িয়েও কী করে একটি ১২ বছরের মেয়ের বিয়ে হতে পারে? এটা কি কোনও মজা নাকি?’

যদিও স্থানীয়দের তরফে জানানো হয়েছে বাইরের লোকজন তাঁদের এই আচার নিয়ম সম্পর্কে জানে না তাই এমন কথা বলছে। এই নিয়মের মাধ্যমে মেয়েটির যৌন আবেদন বাড়ানো হল যাতে এরপর সে স্ত্রী হিসেবে সব কাজ ঠিক করে করতে পারে। উপহার হিসেবে তাকে একটি সুগন্ধি উপহার দেওয়া হয়েছে। নুঙ্গুয়া গোষ্ঠীর তরফে এক নেতার তরফে জানানো হয়েছে এটা তাঁদের ধর্মীয় রীতি এবং আছে অনুযায়ী পালন করা হয়েছে। আর কিছুই না। যাঁরা এটার বিরোধিতা করছেন করতেই পারেন। কিন্তু তাতে তাঁদের কিছু যায় আসে না।

Offbeat World