রাজস্থানে খনিতে ছিঁড়ল লিফট! ৫৭৭ ফুট নীচে আটকে কলকাতা থেকে যাওয়া অফিসাররা

রাজস্থানে খনিতে ছিঁড়ল লিফট! ৫৭৭ ফুট নীচে আটকে কলকাতা থেকে যাওয়া অফিসাররা

রাজস্থানের নিম কা থানা জেলার কোলিহানে অবস্থিত হিন্দুস্থান কপার লিমিটেডের খনিতে একটি ভার্টিক্যাল লিফট ভেঙে পড়ে বিপত্তি ঘটল। দুর্ঘটনার সময় এইচসিএল-এর একটি ভিজিল্যান্স টিমের ১৫ জন কর্মকর্তা এবং সদস্য সেই লিফটে ছিলেন। তাঁরা এই দুর্ঘটনার জেরে আটকে পড়েছিলেন খনিতে। সকালে তাঁদের মধ্যে থেকে তিনজনকে উদ্ধার করা হয় অবশেষে। বাকি এখনও ১২ জন আটকে আছেন প্রায় ৬০০ ফুট গভীরে। জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে এই দুর্ঘটনা ঘটেছিল। এরপর রাতেই উদ্ধার অভিযান শুরু হয়ে যায়। এই ঘটনায় কয়েকজন কর্মকর্তা আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। রিপোর্ট অনুযায়ী, খনিটি ১৮০০ ফুট গভীর। লিফটটি ছিঁড়ে ৫৭৭ ফুট গভীরে ঝুলছিল বলে জানা গিয়েছে। আটকে পড়া ১৫ জনের মধ্যে কলকাতা থেকে যাওয়া আধিকারিকরাও ছিলেন।

নিম কা থানার পুলিশ সুপার প্রবীণ নায়েক সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। খনি লিফট ধসে কোনও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। পরে সকালে জানা যায়, আটকে পড়া মোট ৩ জন কর্মীকে খনি থেকে উদ্ধার করে জয়পুরের হাসপাতালে পাঠানো হয়। আটকে থাকা কর্মীদের মধ্যে এই তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক ছিল। বাকিরা স্থিতিশীল রয়েছেন বলেই জানা গিয়েছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, উদ্ধার হওয়া কর্মীরা হলেন একে শর্মা, হংস রাম এবং প্রীতম সিং। এখনও নীচে আটকে উপেন্দ্র পান্ডে, বনেন্দু ভান্ডারী, নিরঞ্জন সাহু, জিডি গুপ্তা, রমেশ নারায়ণ সিং, বিনোদ সিং শেখাওয়াত, এ কে বায়রা, অর্ণব ভাবদারি, যশরাজ মীনা, বিকাশ পারীক, করণ গেহলট এবং ভগীরথ।

এদিকে রাতেই খনির পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে ঘটনাস্থলে পৌঁছে গিয়েছিলেন বিজেপির স্থানীয় বিধায়ক ধর্মপাল গুর্জর। তিনি বলেন, ‘আমি নির্বাচনী প্রচারের জন্য হরিয়ানায় গিয়েছিলাম। কিন্তু যখন আমি এই খবর পাই, সঙ্গে সঙ্গে আমি এখানে চলে আসি। আমি সবাইকে ফোন করে পুরো পরিস্থিতি খতিয়ে দেখলাম। আমি এখানকার এসডিএমকে ডেকেছি।’ বিজেপি বিধায়ক আরও বলেন, ‘উদ্ধারকারী দল নিযুক্ত রয়েছে এবং ৬-৭টি অ্যাম্বুলেন্স এখানে দাঁড়িয়ে আছে… গোটা প্রশাসন সতর্ক অবস্থায় রয়েছে। এখনও পর্যন্ত কোনও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি, নিশ্চয়ই সবাই নিরাপদে বের হয়ে আসবেন।’

এই ঘটনা নিয়ে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী ভজনলাল শর্মা এক টুইটে লেখেন, ‘ঝুনঝুনুর খেতরিতে হিন্দুস্তান কপার লিমিটেডের কোলিহান খনিতে লিফটের দড়ি ভেঙে যাওয়ার কারণে দুর্ঘটনার খবর পাওয়া গিয়েছে। সংশ্লিষ্ট আধিকারিকদের অবিলম্বে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ত্রাণ ও উদ্ধার অভিযানের গতি বাড়ানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এবং ক্ষতিগ্রস্থ লোকদের সম্ভাব্য সমস্ত সহায়তা ও স্বাস্থ্য সুবিধা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

তথ্য অনুযায়ী, রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের নিয়ে কলকাতা থেকে যাওয়া ভিজিল্যান্স টিম খনির ভিতরে পরিদর্শনের জন্য যায়। সেই সময়ই এই দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানিয়েছে, যখন তাঁরা উপরে উঠতে যাচ্ছিল, তখন শ্যাফট বা ‘খাঁচা’র একটি দড়ি ছিঁড়ে যায় যার ফলে ১৫ জন আটকে যায়। এরপর ১৩ ঘণ্টা ধরে ম্যানুয়ালি লিফট সরানো এবং আটকে পড়া কর্মীদের বের করার চেষ্টা করা হয়। অবশেষে সকালে তাঁদের উদ্ধার করে ওপরে তোলা হয়।

India West Bengal