ভাটপাড়ায় উদ্ধার তাজা বোমা! নিষ্ক্রিয় করল পুলিশ

ভাটপাড়ায় উদ্ধার তাজা বোমা! নিষ্ক্রিয় করল পুলিশ

লোকসভা নির্বাচন শুরু হয়ে গিয়েছে। তার মধ্যেই প্রচুর পরিমাণে তাজা বোমা উদ্ধার হল বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের ভাটপাড়া থানা এলাকায়। পুলিশ খবর পেয়ে মঙ্গলবার রাতেই এই বোমাগুলি নিষ্ক্রিয় করেছে। এই ঘটনার ভিত্তিতে একটি নির্দিষ্ট মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। অন্যদিকে, এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। বারাকপুরের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিং এবং তৃণমূল প্রার্থী পার্থ ভৌমিক একে ওপরের বিরুদ্ধে বোমা রাখার অভিযোগ পালটা অভিযোগ করেছেন।

প্রসঙ্গত, এক্স হ্যান্ডেলে বারাকপুরের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিং একটি পোস্ট করে দাবি করেছিলেন, পুলিশ এবং নির্বাচন কমিশনের কাছে তিনি প্রচুর পরিমাণে বোমা মজুত থাকার বিষয়টি অবগত করেছিলেন। তা সত্ত্বেও পুলিশ কোনও পদক্ষেপ করেনি। বোমাগুলি সেখানেই পড়ে রয়েছে। এরফলে মানুষ পুলিশের ওপর আস্থা হারাচ্ছে। এরপরেই অর্জুন সিংয়ের পোস্টটিকে ট্যাগ করে পুলিশের তরফে পালটা একটি বিবৃতি দিয়ে বোমাগুলি নিষ্ক্রিয় করার পাশাপাশি নির্দিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করে তদন্তের কথা জানানো হয়।

পোস্টে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের তরফে দাবি করা হয়েছে, বোমা মজুত থাকার খবর পেয়ে তৎপরতার সঙ্গে ওই জায়গা ঘিরে ফেলে ভাটপাড়া থানার পুলিশ। এরপর বারাকপুর সিটি পুলিশের বোম ডিসপোজাল স্কোয়াড সেগুলি নিষ্ক্রিয় করেছে। উল্লেখ্য, ভাটপাড়া পুরসভার দিঘির পাড় এলাকা থেকে তল্লাশি চালিয়ে ৪০ টি তাজা বোমা উদ্ধার করে ভাটপাড়া থানার পুলিশ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন বারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের ডিসি (নর্থ) গণেশ বিশ্বাস। তিনি সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে জানান, কে বা কারা বোম রেখেছিল তার তদন্ত শুরু হয়েছে।

এদিকে বোমা উদ্ধার ঘিরে বারাকপুরে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। অর্জুন সিংয়ের অভিযোগ, পুলিশ এবং নির্বাচন কমিশনকে তিনি দুদিন আগে এই বিষয়ে জানিয়েছিলেন। তিনি বলেন, ‘পার্থ ভৌমিকের দুই অনুগামী সেখানে বোমা মজুত রেখেছিল। আমার মনে হয় ওখানে ১০০ এর বেশি বোমা রাখা হয়েছিল।’

অন্যদিকে, তৃণমূল প্রার্থী পার্থ ভৌমিক গারুলিয়ায় ভোটের প্রচারের ফাঁকে বলেন, ‘যত বোমা পাওয়া যাচ্ছে পুলিশ সব উদ্ধার করছে। এই সব বোমা আসলে অর্জুনের। ওর সব বোম উদ্ধার হচ্ছে ওর সব মস্তানি এবার শেষ। এবার অর্জুনের গুন্ডামি শেষ হবে।’ জগদ্দলের তৃণমূল বিধায়ক সোমনাথ শ্যামও বলেন, ‘এসব বোমা অর্জুনের। পুলিশ যেহেতু চিরুনি তল্লাশি চালাচ্ছে তাই ধরা পড়ার অর্জুন নিজেই জানিয়ে দিচ্ছে কোথায় বোম আছে।’

West Bengal