বিধাননগরে বেআইনি নির্মাণে কড়া অবস্থান আদালতের

বিধাননগরে বেআইনি নির্মাণে কড়া অবস্থান আদালতের

বিধাননগর পুর এলাকায় বেআইনি নির্মাণ ভাঙতে কড়া নির্দেশ দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অমৃতা সিনহা। শুধু তাই নয়, যে ২ নির্মাণ ব্যবসায়ী ওই ভবন তৈরি করেছিলেন তাঁরা বিধাননগর পুর এলাকায় আর কোনও নির্মাণকাজ করতে পারবেন না বলে নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি। সঙ্গে আদালতের কাছে ১ কোটি টাকা জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

অভিযোগ বিধাননগর পুর এলাকায় ৩৫ নম্বর ওয়ার্ডের একটি বহুতল নিয়ে। কোনও অনুমতি ছাড়াই ওই বহুতল গড়ে উঠেছে বলে আদালতে অভিযোগ করেন স্থানীয় এক ব্যক্তি। সেই মামলার শুনানিতে বুধবার বিচারপতি সিনহা প্রশ্ন করেন ক’তলা আবাসন। আইনজীবী জবাব দেন ৫ তলা। বিচারপতি বলেন, কোনও অনুমতি কি নেওয়া হয়েছিল? জবাবে আইনজীবী বলেন, বানানোর আগে অনুমতি নেওয়া হয়নি। পরে অনুমতির জন্য আবেদন করা হয়েছে। এর পর বিচারপতি সিনহা বলেন, এই প্রোমোটারকে তো অবিলম্বে পুলিশ হেফাজতে পাঠানো দরকার।

নির্দেশে বিচারপতি বলেন, অবিলম্বে ওই বাড়ির জল ও বিদ্যুতের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে হবে। ৩০ দিনের মধ্যে ওই বাড়ি খালি করতে হবে। ১২ এপ্রিলের মধ্যে ওই বাড়ির নির্মাতা ২ প্রোমোটারকে ১ কোটি টাকা জমা দিতে হবে হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের কাছে। আদালতের নির্দেশ ছাড়া তারা বিধাননগর পুর এলাকায় আর কোনও বাড়ি তৈরি করতে পারবেন না। তাদের সম্পত্তির খতিয়ান জমা দিতে হবে আদালতে। আদালতের অনুমতি ছাড়া ওই ২ প্রোমোটার আর কোনও সম্পত্তি কেনা-বেচা করতে পারবেন না। বিচারপতি নির্দেশে জানিয়েছেন, বাড়িটি খালি হলে সেটি ভাঙার ব্যাপারে সঙ্গে সঙ্গে উদ্যোগী হতে হবে পুরসভাকে।

Politics West Bengal