বাম আমলে চাকরির জন্য কোনও টাকা দিতে হতো না! দুর্নীতি নিয়ে TMC-কে তোপ দেবাশিসের

বাম আমলে চাকরির জন্য কোনও টাকা দিতে হতো না! দুর্নীতি নিয়ে TMC-কে তোপ দেবাশিসের

বীরভূম থেকে এবার বিজেপির প্রার্থী হয়েছেন শীতলকুচির ঘটনার সময় পুলিশ সুপারের দায়িত্বে থাকা প্রাক্তন আইপিএস দেবাশিস ধর। জেলার পুলিশ সুপারের দায়িত্বে থাকার সময় একাধিক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল দেবাশিস ধরের। সেই সূত্র ধরেই লোকসভা ভোটের আগে বিজেপিতে যোগদান করেন প্রাক্তন আইপিএস। সম্প্রতি একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শীতলকুচির ঘটনা নিয়ে বিস্ফোরক দাবি করেছেন প্রাক্তন আইপিএস। তাতে অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছে রাজ্য সরকারকে। আর এবার নিয়োগে দুর্নীতি নিয়ে রাজ্য সরকারকে দুষলেন বিজেপি প্রার্থী। একই সঙ্গে বাম আমলের প্রশংসা শোনা গেল বিজেপি প্রার্থীর মুখে। 

একটি বাংলা সংবাদমাধ্যমকে দেবাশিস জানিয়েছেন, বাম আমলে চাকরির জন্য প্রার্থীদের কোনও টাকা দিতে হতো না। নিজের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে তিনি জানান, বাম আমলে তিনি বেশ কয়েক বছর চাকরি করেছেন। তবে চাকরির জন্য তাঁর বাবা মাকে ৫ টাকাও খরচ করতে হয়নি। এছাড়াও পোস্টিংয়ের জন্যও কাউকে এক কাপ চা অফার করতে হয়নি। তাঁর বক্তব্য, তৃণমূলের আমলে যেভাবে চাকরিতে দুর্নীতির অভিযোগ সামনে এসেছে বাম আমলে সেরকম কোনও দুর্নীতি ছিল না। 

তাঁর আরও বক্তব্য, বাম আমলে কথা শোনা হত, যেটা তৃণমূলের সময় হয় না। বিজেপি প্রার্থী জানান, তাঁর সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে সরকারের মত পার্থক্য দেখা গিয়েছে। তবে একজন নেতাকে সেই কথা বলা হলে তিনি শুনতেন। তিনি আরও জানান, বাম আমলে যারা সরকারে ছিলেন তারা ছিলেন শিক্ষিত মানুষজন।

এর পাশাপাশি তৃণমূল প্রার্থী শতাব্দী রায়কেও কটাক্ষ করেন দেবাশিস। তিনি বলেন, একসঙ্গে দুজনকে পা দিয়ে চলা যায় না। তাই রাজনীতি আর অভিনয় একসঙ্গে করা যায় না। অভিনয়টা মোটেই খারাপ জিনিস নয়। তবে অভিনয়ের সঙ্গে রাজনীতি মিলিয়ে দিলে সে ক্ষেত্রে নিজের পেশার প্রতি অবিচার করা হয়। মানুষকে ঠকানো হয়। এ প্রসঙ্গে, তিনি সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে বলেন, উনি মাসে একবার এলাকায় আসেন। আর ২৫ দিন কলকাতায় থাকেন। ভোটারদের উদ্দেশ্যে তাঁর পরামর্শ, এমন একজনকে সংসদ হিসেবে বেছে নেওয়া উচিত যিনি সবসময় তাদের পাশে থাকবেন।

উল্লেখ্য, দেবাশিস ধর একটা সময় কোচবিহারের এসপি ছিলেন। সেই সময়েই শীতলকুচি কাণ্ড ঘটেছিল। পরবর্তী সময় তাঁকে সাসপেন্ড করা হয়। সম্প্রতি তিনি চাকরি ছাড়েন। এরপর তিনি যে বিজেপি মুখী হচ্ছেন তার ইঙ্গিতও মিলছিল। এমনকী তাঁর ইস্তফাপত্র গ্রহণ করা পর্যন্ত বিজেপি অপেক্ষা করছে এমন জল্পনাও চলছিল। তবে যাবতীয় জল্পনাকে সত্যি করে এবার বীরভূমের বিজেপি প্রার্থী প্রাক্তন আইপিএস দেবাশিস ধর।

loksabha Election 2024 Politics West Bengal