দল-বিরোধী কাজ করে বহিষ্কৃত সঞ্জয়! যোগ শিন্ডে শিবিরে?

দল-বিরোধী কাজ করে বহিষ্কৃত সঞ্জয়! যোগ শিন্ডে শিবিরে?

কংগ্রেস থেকে বহিষ্কৃত হওয়ার পরে সম্ভবত একনাথ শিন্ডের শিবসেনায় যোগ দিতে চলেছেন সঞ্জয় নিরুপম। একাধিক রিপোর্ট অনুযায়ী, মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের শিবসেনার সামনে মাথা নোয়ানো নিয়ে বিরূপ মন্তব্যের পরে তাঁর বিরুদ্ধে কংগ্রেস ব্যবস্থা নেওয়ায় উদ্ধব-বিরোধী শিন্ডে গোষ্ঠীতে যোগ দিচ্ছেন প্রাক্তন সাংসদ। তিনি নিজে অবশ্য সে বিষয়ে কিছু জানাননি। কংগ্রেস তাঁকে বহিষ্কৃত করার মধ্যেই প্রাক্তন সাংসদ শুধু জানিয়েছেন যে এবার তাঁর পদক্ষেপ কী হবে, সেই বিষয়টি বৃহস্পতিবার জনসমক্ষে ঘোষণা করবেন। এমনকী মুম্বইয়ের একটি আসন থেকে শিন্ডেরা তাঁকে টিকিট দিতে পারেন বলে জল্পনা চলছে। ওই আসন থেকে এখনও কোনও প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেননি শিন্ডে। সেই পরিস্থিততে দুইয়ে দুইয়ে চার করছে রাজনৈতিক মহল।

আর সেই লোকসভা ভোটের প্রার্থীপদ নিয়েই যত সমস্যার সূত্রপাত হয়েছিল। সূত্রের খবর, কংগ্রেসের টিকিটে উত্তর-পশ্চিম মুম্বই লোকসভা আসন থেকে লড়তে চেয়েছিলেন সঞ্জয়। কিন্তু সেই আসনে অমল কীর্তিকারকে প্রার্থী ঘোষণা করে দেয় কংগ্রেসের জোটসঙ্গী শিবসেনা (উদ্ধব গোষ্ঠী)। সেই পরিস্থিতিতে উদ্ধবদের সামনে যাতে কংগ্রেস মাথা না নুইয়ে ফেলে, সেই বার্তা দিয়েছিলেন সঞ্জয়।  

এমনিতে সঞ্জয় একটা সময় অবিভক্ত শিবসেনায় ছিলেন। ২০০৫ সালে কংগ্রেসে যোগ দিয়েছিলেন। ২০১৯ সালে উত্তর-পশ্চিম মুম্বই থেকে লোকসভা ভোটে লড়াই করেছিলেন। কিন্তু শিন্ডে গোষ্ঠীর প্রার্থীর কাছে হেরে গিয়েছিলেন সঞ্জয়। যিনি কংগ্রেস থেকে বহিষ্কৃত হওয়ার কিছুটা আগেই শতাব্দীপ্রাচীন রাজনৈতিক দলকে তোপ দেগেছিলেন। 

বুধবার সকালে তাঁকে কংগ্রেসের তারকা প্রচারকের তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার পরেই প্রাক্তন সাংসদ সঞ্জয় বলেন, ‘নিজেকে বাঁচানোর জন্য নিজের কর্মশক্তি ব্যবহার করা উচিত ওদের (কংগ্রেসের)। কারণ চরম আর্থিক সংকটের মুখে আছে কংগ্রেস। আমি দলকে যে সময়সীমা বেঁধে দিয়েছিলাম, সেটা মেয়াদ আজ (বুধবার) শেষ হল। আগামিকাল (বৃহস্পতিবার) আমার পরবর্তী পদক্ষেপের বিষয়ে ঘোষণা করব।’

সেই মন্তব্যের কয়েক ঘণ্টা পরে কংগ্রেসের তরফে ঘোষণা করা হয় যে শৃঙ্খলাহীনতা এবং দল-বিরোধী মন্তব্যের জন্য সঞ্জয়কে বহিষ্কার করে দেওয়া হচ্ছে। একটি বিবৃতিতে কংগ্রেসের তরফে জানানো হয়, ছয় বছরের জন্য তাঁকে বহিষ্কার করা হচ্ছে। যিনি ২০০৯ সালে উত্তর মুম্বই লোকসভা আসন থেকে কংগ্রেসের টিকিটে জিতেছিলেন। আর সেই আসন থেকেই ২০১৪ সালে বিজেপির গোপাল শেট্টির কাছে হেরে গিয়েছিলেন।

India Politics