জোট ক্ষমতায় এলে সত্যিই কি ‘মুসলিম বাজেট’ হবে?

জোট ক্ষমতায় এলে সত্যিই কি ‘মুসলিম বাজেট’ হবে?

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বুধবার বলেছিলেন যে কংগ্রেস একটি পৃথক মুসলিম বাজেট আনবে কারণ তারা আগেও চেয়েছিল এবং গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন মোদী তখন এর বিরোধিতা করেছিলেন। কংগ্রেস এই অভিযোগকে আপত্তিজনক এবং হ্যালুসিনেটর বলে অভিহিত করেছে। পি চিদম্বরম বলেন, মনমোহন সিং বাজেটের ১৫ শতাংশ মুসলিমদের জন্য ব্যয় করার পরিকল্পনা নিয়েছিলেন বলে মোদী যে দাবি করেছেন তা সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং তাঁর বক্তৃতা যাঁরা লিখে দেন সেই লেখকরা ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছেন।

ভারতীয় সংবিধানের ১১২ নং অনুচ্ছেদে শুধুমাত্র একটি বার্ষিক আর্থিক বিবৃতির কথা বলা হয়েছে, আর তা হল কেন্দ্রীয় বাজেট। দুটো বাজেট কীভাবে হতে পারে?’ চিদাম্বরম এক্স-এ লিখেছেন।

কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক জয়রাম রমেশ বলেছেন, মোদির মুসলিম বাজেট বিবৃতি ‘টিপিক্যাল মোদী বোম্বাস্ট এবং বোগাসনেস’। জয়রাম রমেশ বলেন, বাস্তবে মনমোহন সিং ২০১৩ সালে কৃষি বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের একটি কমিটি গঠন করছিলেন, তারপর মোদী প্রধানমন্ত্রী হন।

মুসলিম বাজেট কী? কী বললেন মোদী?

বুধবার মহারাষ্ট্রের নাসিকে এক জনসভায় নরেন্দ্র মোদী বলেন, কংগ্রেস সরকারি বাজেটের ১৫ শতাংশ সংখ্যালঘুদের জন্য বরাদ্দ করতে চায়। তিনি বলেন, আমি যখন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ছিলাম, তখন কংগ্রেস এই প্রস্তাব এনেছিল। বিজেপি এই পদক্ষেপের তীব্র বিরোধিতা করেছিল এবং তাই এটি কার্যকর করা যায়নি। কিন্তু কংগ্রেস ফের এই প্রস্তাব আনতে চাইছে।

কংগ্রেস নির্বাচিত হলে ধর্মের ভিত্তিতে দুটি বাজেট তৈরি করবে। আমি বাজেটকে ‘হিন্দু বাজেট’ এবং ‘মুসলিম বাজেট’ হিসাবে ভাগ করতে দেব না এবং ধর্মের ভিত্তিতে সংরক্ষণের অনুমতি দেব না।

নরেন্দ্র মোদী কখনই হিন্দু-মুসলিম রাজনীতিকে প্রশ্রয় দেননি, কংগ্রেসের তোষণের রাজনীতি উন্মোচন করেছেন বলে নরেন্দ্র মোদী যে ব্যাখ্যা দিয়েছেন তা নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই এই বিবৃতি দেওয়া হয়েছে। কংগ্রেস প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিভাজনের রাজনীতি করার অভিযোগ করেছে, কারণ সাম্প্রতিক ভাষণে মোদী ‘সম্পদ পুনর্বণ্টন’ সম্পর্কে মন্তব্য করে ‘অনুপ্রবেশকারী’, ‘যাদের বেশি সন্তান রয়েছে’ সম্পর্কে একটি বিবৃতি দিয়েছেন। এক সাক্ষাৎকারে তিনি স্পষ্ট করে দেন, তিনি মুসলিম নয়, গরিব পরিবারের কথা বলছেন।

তবে মোদী আগেই ব্যাখা দিয়েছিলেন তিনি মুসলিমদের সম্পর্কে কিছু বলতে চাননি। তিনি বোঝাতে চেয়েছিলেন গরীব মানুষদের নিয়ে। মোদী সরকার সকলের সার্বিক উন্নতি চায়। এখানে হিন্দু মুসলিম কোনও বিভেদ নেই। 

তবে কংগ্রেসের দাবি মোদী মুসলিম বাজেট সংক্রান্ত যে কথা বলছেন তা তিনি ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে বলছেন। এটা হ্যালুসিনেশন ছাড়া কিছুই নয়।

India Politics