অযোগ্যদের বাঁচাতে যোগ্যদের ঢাল করেছেন মমতা: সুকান্ত

অযোগ্যদের বাঁচাতে যোগ্যদের ঢাল করেছেন মমতা: সুকান্ত

SSC নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় ঐতিহাসিক রায়ে প্রায় ২৬ হাজার শিক্ষককে চাকরি থেকে বরখাস্ত করতে নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। আদালতের নির্দেশে মাথায় হাত পড়েছে ২০১৬ সালের নিয়োগপ্রক্রিয়ায় চাকরি পাওয়া যোগ্য শিক্ষকদের। যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে পাওয়া চাকরি চলে যাওয়ায় ভেঙে পড়েছেন তাদের অনেকে। এই পরিস্থিতিতে যোগ্য চাকরিহারা প্রার্থীদের পাশে থাকার বার্তা দিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। তিনি বলেন, ‘অযোগ্যদের বাঁচাতে যোগ্যদের হাতিয়ার করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আমরা যোগ্যদের পাশে দাঁড়াব। তাদের আইনি সাহায্য করব।’

যোগ্যদের পাশে বিজেপি

এদিন সুকান্তবাবু বলেন, ‘এই পরিস্থিতির জন্য দায়ী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কারণ কোর্ট বলেছিল, আপনারা আটা আর ভুসি আলাদা করুন। প্রচুর মানুষ আছে ওর মধ্যে যারা সত্যিকারের যোগ্য। আর ভুসি হচ্ছে ৫ হাজার মাত্র। যারা তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাদের টাকা দিয়ে চাকরি পেয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেস ভুসি আটা আলাদা না করায় বেচারাদের ভুগতে হচ্ছে। পরিবারগুলোকে ভুগতে হচ্ছে। যাদের যোগ্যতা থাকা সত্বেও কষ্টের মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে আমরা তাদের পাশে আছি। প্রয়োজনে আইনি সাহায্য করব’।

মমতাকে তোপ সুকান্তর

মমতার বিরুদ্ধে চালাকির রাজনীতি করার অভিযোগ তুলে সুকান্তবাবু বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যোগ্যদের পাশে থাকবেন সেকথা বলছেন না। উনি বলছেন, আমি সবার পাশে থাকব। মানে, যোগ্যদের সঙ্গে অযোগ্যদেরও পাশে থাকবেন। ওটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ। অযোগ্যদের বাঁচানোর জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যোগ্যদের শিখণ্ডি করেছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, ব্রাত্য বসু কি পারতেন না, যারা ঘুষ দিয়ে চাকরি পেয়েছেন তাদের নামের তালিকা আলাদা করে আদালতের হাতে তুলে দিতে। তাহলেই তো যোগ্যদের কিচ্ছু হত না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কী চালাকি করলেন? উনি রাজনীতি করলেন। উনি যে ৫০০০ জনের কাছ থেকে ওনার নেতারা পয়সা নিয়ে চাকরি দিয়েছে, তাদের বাঁচানোর জন্য ২০০০০ যোগ্য শিক্ষককে ঢাল করলেন’।

সোমবারের রায়ে আদালত জানিয়েছে, ২০১৬ SSC দুর্নীতি হয়েছে মোট ১১ রকম ভাবে। তার পর সেই দুর্নীতি ঢাকতে সুরাপ নিউমেরারি পদ তৈরি করেছে রাজ্য মন্ত্রিসভা। মন্ত্রিসভার সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে CBI তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

loksabha Election 2024 Politics West Bengal