যুবতীর শ্লীলতাহানি! গ্রেপ্তার যুবক


ভরা বাজারে এক যুবতীর শ্লীলতাহানি করার অভিযোগে গ্রেপ্তার হল এক যুবক। তাকে গ্রেপ্তার করেছে সোনারপুর থানার পুলিস। বুধবার রাতে সোনারপুর সব্জি বাজারের ঘটনা। এই ঘটনাকে ঘিরে বাজার চত্বরে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। ধৃতের নাম তন্ময় পাঠক বলে জানিয়েছে পুলিস। তার বাড়ি সোনারপুরের সুভাষগ্রাম এলাকায়। বৃহস্পতিবার তন্ময়কে বারুইপুর মহকুমা আদালতে পাঠানো হয়েছে। তার বিরুদ্ধে পুলিস শ্লীলতাহানির মামলাও শুরু করেছে। পুলিস সূত্রে জানা গেছে, বুধবার রাতে সোনারপুর বাজার সংলগ্ন গোড়খাড়া এলাকার বাসিন্দা এক যুবতী সব্জী বাজার করতে সোনারপুর বাজারে আসেন। যুবতী আদতে ভিন্‌ রাজ্যের বাসিন্দা। তবে অনেক দিন ধরেই তিনি এখানে থাকেন। তাঁর অভিযোগ, তিনি বাজার করার সময় হঠাৎই লক্ষ্য করেন অভিযুক্ত তন্ময় তাঁকে অনুসরন করছে। তিনি যেখানে দাঁড়ায়ে সব্জি কিনছেন তন্ময়ও তাঁর পাশে এসে দাঁড়াচ্ছে। তিনি ওই যুবককে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু যুবক তাঁর পিছু ছাড়ে না। এক সময় তিনি যখন এক সব্জি দোকান থেকে কেনাকাটা করছেন তখনই যুবক তাঁর পাশে এসে দাঁড়ায়। তারপর ভরা বাজারের মধ্যেই তাঁর সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেন। তাঁর শ্লীলতাহানি করেন। তিনি চিৎকার করে প্রতিবাদ করেন। তাতেও তন্ময় নিজের দোষ স্বীকার না করে তর্ক জুড়ে দেন। কিন্তু আশেপাশের মানুষ তাকে চেপে ধরেন। তাঁরাই যুবতীর সঙ্গে তাকে সোনারপুর থানায় নিয়ে আসেন। যুবতী পুলিসের কাছে তন্ময়ের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিস তাকে গ্রেপ্তার করেছে। যদিও জেরার সময় যুবক তাকে ফাঁসানো হয়েছে বলে দাবি করেছে।
Powered by Blogger.