মুখে প্লাস্টিক সার্জারি করেছেন জয়া?


জয়ার প্রথম ডিরেক্টর অরিন্দম শীল। ২০১৩ সালে অরিন্দমের ‘আবর্ত’ দিয়ে কলকাতার ছবিতে অভিনয় শুরু করেন জয়া আহসান। পরিচালকের সঙ্গে তখন থেকেই সুসম্পর্ক বাংলাদেশি অভিনেত্রীর। পরে অরিন্দমের আরেক ছবি ‘ঈগলের চোখ-এও দেখা গেছে জয়াকে। তিনি জয়াকে নিয়ে বলেছেন, “জয়া বোধহয় কিছু একটা করেছে ওর মুখে।’’ পরিষ্কার ইংগিত প্লাস্টিক সার্জারির।

জয়া ওপার বাংলার অনেক নামি পরিচালকের সঙ্গে কাজ করলেও অরিন্দমের সঙ্গে সম্পর্কটা বরাবরই ছিল অন্য রকম। কিন্তু সেই সম্পর্কে প্রশ্নবোধক চিহ্ন এঁকে দিয়েছে অরিন্দমের এই মন্তব্য।
অরিন্দমের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল তাঁর প্রিয় নায়িকা প্রসঙ্গে। উত্তর দিতে গিয়ে জয়াকে তিনি রাখেন দুই নম্বরে। অথচ আগে সব সময়ই তাঁর পছন্দের শীর্ষে ছিলেন জয়া।
হঠাৎ কী এমন হলো? উত্তরে পরিচালক ইঙ্গিত করেছিলেন সার্জারির দিকে। অরিন্দমের এমন মন্তব্য ভালোভাবে নেননি জয়া। তিনি বলেন, ‘যে রুচিশীল মানুষটার হাত ধরে এই ইন্ডাস্ট্রিতে এসেছিলাম, সেই মানুষটার রুচির সঙ্গে এই কথাগুলো যিনি বলেছেন তাঁকে আমি মেলাতে পারছি না। আমার ‘বিজয়া’ ছবিটা জানুয়ারি মাসে মুক্তি পাবে। আমি চাইব উনি ছবিটা দেখুন। আশা করি, তারপর উনি নিজের বিবৃতিটা পাল্টাবেন। উনি ‘এক যে ছিল রাজা’ ছবিটাও এর মধ্যে দেখে নিতে পারেন। যদি এই দুটি ছবি দেখে উনি তাঁর স্টেটমেন্টটা চেঞ্জ করেন, তাহলে আমি সম্মানিত বোধ করব।”
অরিন্দম তাঁর সাক্ষাৎকারে আরো কয়েকজন অভিনেত্রীর সার্জারির ব্যাপারে বলেছেন। কিন্তু তাঁদের কারো নাম উল্লেখ করেননি। এটাও অবাক করেছে জয়াকে, ‘দেখলাম উনি আরো দুজন অভিনত্রীর ব্যাপারেও একই সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। কিন্তু তাঁদের নাম উনি নেননি। এটা আমার কাছে আশ্চর্য লাগল।’
Powered by Blogger.