কালীঘাট স্কাইওয়াক নিয়ে বৈঠকে ব্যস্ত নতুন মেয়র

                                                                      ছবিঃ বিভাস লোধ
   
প্রথমদিনের ম্যারাথন বৈঠকের পর বুধবার ফের বৈঠকে বসলেন কলকাতার নবনিযুক্ত মেয়র ফিরহাদ হাকিম। এদিন তিনি কালীঘাট স্কাই ওয়াকের জট খুলতে তিন দফতরকে নিয়ে একসঙ্গে বৈঠক করেন। এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন পুরসভার আইন বিভাগের মেয়র পরিষদ বৈশ্বানর চট্টোপাধ্যায়। তাছাড়াও ছিল ৩টে থানা যেমন, কালীঘাট, ভবানীপুর ও টালিগঞ্জ থানা। ছিলেন রাইটসের প্রতিনিধিরাও। এদিন বৈঠকে স্কাইওয়াক তৈরিতে যে যে সমস্যা রয়েছে তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। প্রজেক্টরের মাধ্যমে রাইটসের প্রতিনিধি তুলে ধরেন সমস্যাগুলি। কারণ এর আগেই কালীঘাট স্কাই ওয়াক নিয়ে একটি সমীক্ষা করে রাইটস। প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় ও রাইটসের সঙ্গে বসে কালীঘাট স্কাইওয়াক নিয়ে আলোচনা করেন। কিন্তু সে সময় কোনও সমাধান সূত্র না মেলায় বুধবার ফের বৈঠক করেন নতুন মেয়র। ডাকা হয় ওই এলাকার তিন থানাকেও।

কারণ মন্দির এলাকা যথেষ্ট ঘনবসতিপূর্ণ। রাসবিহারীর যে জায়গা থেকে স্কাই ওয়াক টি মুখ তুলে দাঁড়াবে, আর মন্দিরের যে জায়গায় এসে শেষ হবে এই বিস্তীর্ণ এলাকায় বহু সমস্যা পেয়েছেন রাইটসের বিশেষজ্ঞরা। যেহেতু স্কাই ওয়াকটি লম্বায় ৪৫০ মিটার আর চওড়ায় ১০.৫। আর তাতেই সমস্যা আরও বেড়েছে।
দক্ষিণেশ্বরের স্কাইওয়াকের পর কালীঘাট মন্দিরে স্কাইওয়াকের কথা আগেই ঘোষনা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই ঘোষণার পরই কেএমডিএ ও পূর্ত দফতর একযোগে কাজ শুরু করে। সরকারের তরফে ১২৫ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয় স্কাইওয়াকের জন্য। জানা গিয়েছে দক্ষিণেশ্বর মন্দিরের স্কাই ওয়াকের থেকেও বড় আকারে তৈরি হবে এই স্কাইওয়াক। ৩ টি করে মোট ৬টি চলমান সিঁড়ি থাকবে। আর ৬টি পায়ে হাত সিঁড়ির ব্যবস্থা করা হবে। এখন দেখার কত তাড়াতাড়ি মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে পারে কলকাতা পুরসভা। দক্ষিণেশ্বরের স্কাইওয়াকের পর কালীঘাট মন্দিরে স্কাইওয়াকের কথা আগেই ঘোষনা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই ঘোষণার পরই কেএমডিএ ও পূর্ত দফতর একযোগে কাজ শুরু করে। সরকারের তরফে ১২৫ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয় স্কাইওয়াকের জন্য। জানা গিয়েছে দক্ষিণেশ্বর মন্দিরের স্কাই ওয়াকের থেকেও বড় তৈরি হবে এই স্কাইওয়াক। ৩ টি করে মোট ৬টি চলমান সিঁড়ি থাকবে। আর ৬টি পায়ে হাত সিঁড়ির ব্যবস্থা করা হবে। এখন দেখার কত তাড়াতাড়ি মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে পারে কলকাতা পুরসভা।
Powered by Blogger.