"হার্মাদরা বিজেপিতে নাম লিখিয়েছে": মুখ্যমন্ত্রী



চাঁদনী,পূর্ব মেদিনীপুরঃ পূর্ব মেদিনীপুরের বাজকুলে মুখ্যমন্ত্রী মমতাবন্দ্যোপাধ্যয়ের জনসভা।মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, "এই সভায় জেলার দশ হাজার লোককে বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের সুযোগ তুলে দেওয়া হয়েছে।এই মেদিনীপুর জেলা হল স্বাধীনতা সংগ্রামের জেলা।এই জেলার মানুষরা কখনও মাথানত করে না।আমরা খেজুরি, নন্দীগ্রাম, পটাশপুর, পাঁশকুড়া ভুলে যায় নি।আমাকে চমকালে আমি গর্জায়।" তিনি আরও বলেন, "অনেক মানুষকে হলদি নদীতে কুচিয়ে খুন করা হয়েছে।আজ চৌদ্দ জন ফিরে আসেনি।ভুলবেন না নেতাইয়ের ঘটনা।একটার পর একটা খুন করা হয়েছে।এখনও ডেড বডিগুলো কোথায় তা কেউ জানে না।এই অত্যাচার আমরা ভুলিনি।সিঙ্গুর, চন্ডীতলা ছোট আঙারিয়ার গণহত্যা আমরা ভুলে যায় নি।মাওবাদী ও সিপিএমরা জঙ্গলমহলে প্রতিদিন ৪০০ মানুষকে খুন করত।আর সেই হার্মাদরা বিজেপিতে নাম লিখিয়েছে।এদের লজ্জা নেই।এরা সারা বাংলায় হিন্দু-মুসলমানের মধ্যে দাঙ্গা লাগাচ্ছে।"


তিনি এও বলেন, "দিঘায় বিশ্ববাংলা হয়েছে।মহিষাদলে আমরা বিশ্ববিদ্যালয় করেছি।২৩০০ কোটি টাকার পানিয়জলের প্রজেক্ট করা হয়েছে।ঘাঁটাল প্রকল্প হয়ে গেলে বন্যা নিয়ন্ত্রণ হবে।হলদিয়া আর ৯ হাজার টাকা বিনিয়োগ করা হবে খুব শীঘ্রই।মাত্র ন'মাসে আমি দিঘা-তমলুক রেললাইন করেছি।আমরা ক্ষমতায় এলে নন্দীগ্রামে রেললাইন করে দেবো।২০ টি কর্মতীর্থ করেছি।

ময়নাতে মৎস্য চাষে মডেল হয়েছে।কন্যাশী মেয়েদের ভাতা এক হাজার টাকা করে দেওয়া হয়েছে।" তাঁর কথায়, "শিক্ষাশ্রী স্কলারশিপ দিচ্ছি।একটা বাচ্চা জন্মালে আমরা একটা গাছ দিচ্ছি।রুপশ্রী প্রকল্পে আমরা বিয়ের সময় ২৫ হাজার টাকা মেয়েদের দিচ্ছি।সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পে আমরা সমাজের সর্বস্তরের মানুষদের সুবিধা দিয়েছি।প্রথম দু'লক্ষ লোকশিল্পীদের ভাতা দিচ্ছি।আমরা দু'টাকা কিলো চাল দিচ্ছি।বাচ্চাদের স্কুলে মিড-ডে-মিল থেকে শুরু করে একটা মানুষ মরে গেলে সমব্যথী প্রকল্পে আমাদের সরকার দু'হাজার টাকা করে দিচ্ছে।এই সমস্ত প্রকল্প কোথাও নেই।শুধুই বাংলায় রয়েছে।কৃষকদের মিউটেশন ফি মুকুব করেছি।সরকারি হাসপাতালে ওষুধের দাম লাগে না।স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প করে দেওয়া হয়েছে।ছ'লক্ষ বেকার ছেলেমেয়েকে প্রশিক্ষণ দিয়ে চাকরী করে দেওয়ার ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে।" তাঁর অভিযোগ, 'আসামে ৪০ লক্ষ ভোটার বাদ দেওয়া হয়েছে।তার মধ্যে ২৩ লক্ষ হিন্দু ভোটার।স্বাধীনতার সময়ও বিজেপির জন্ম হয়নি।আজকে কোটি কোটি টাকা দিয়ে লোককে ভয় দেখাচ্ছে।দলিতদের হনুমান বলছে বিজেপি।সংখ্যালঘুদের খুন করছে।বুলেন্দ শহরে পুলিশকে খুন করছে বিজেপি।বিজেপি শাসিত রাজ্যে ১২ হাজার কৃষক আত্মহত্যা করেছে।আমরা আঘাত করলে প্রত্যাঘাত করি।হার্মাদের জন্ম আর বাংলায় হতে দেব না।
Powered by Blogger.