দুষ্কৃতীদের কোপে চার আঙুল খোয়ালো যুবক


মালদা, ২২ নভেম্বরঃ মোটর বাইক থামিয়ে ছিনতাইয়ের ঘটনায় বাধা দেওয়ায়, দুষ্কৃতীদের ধারালো অস্ত্রের কোপে চারটি আঙুল কাটল এক যুবকের। আহত অবস্থায় ওই যুবকের চিকিৎসা চলছে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। ঘটনাটি ঘটেছে হবিবপুর থানার বুলবুলচন্ডী গ্রাম পঞ্চায়েতের মনোহরপুর এলাকায়। দুষ্কৃতীদের চিনতে না পারলেও হামলা এবং ছিনতাইয়ের ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের। এই ঘটনায় একটি মোটর বাইক এবং একজন এখনো পর্যন্ত নিখোঁজ।  ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।
 পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আক্রান্ত যুবকের নাম মনোতোষ বর্মন(২১)। সে ভিন রাজ্যে শ্রমিকের কাজ করে। বাড়ি হবিপুর থানার তালপুকুর এলাকায়।
 জানা গিয়েছে, বুধবার রাতে মনোহরপুর থেকে রাত্রি ১১ টা নাগাদ তারা গ্রামে ফিরছিল। তারা মোটর বাইকে চেপে বাড়ি ফিরছিল। জানা গিয়েছে, সেই সময় হঠাৎ করে ৫ থেকে ৬ জন দুষ্কৃতী তাদের পথ আটকে টাকা-পয়সা মোবাইল এবং মোটরবাইক ছিন্তায়ের চেষ্টা করে। সেই সময় বাধা দিতে গেলে দুষ্কৃতীরা ধারালো অস্ত্র নিয়ে বাইক আরোহীদের উপর চড়াও হয় বলে অভিযোগ। এরপর বাধা দিতে গেলে চারটি আঙুল কেটে যায় মনোতোষ বর্মনের। তার সঙ্গে ছিল মানিক সাহানি সহ তিন বন্ধু। ঘটনার পর থেকে নিখোঁজ রয়েছে মানিক সাহানি ও তার মোটর বাইকটি। রাতে সমস্ত ঘটনা জানিয়ে হবিপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। আহত অবস্থায় মনতোষকে উদ্ধার ভর্তি করা হয় গ্রামীণ হাসপাতালে।  সেখান থেকে রাতেই তাকে স্থানান্তর করা হয় মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে।  বর্তমানে সেখানেই চলছে তার চিকিৎসা। ধারালো অস্ত্রের কোপে তার বাঁ হাতের চারটি আঙ্গুলে ক্ষত হয়।হবিবপুর থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। অভিযুক্তরা পলাতক। 
Powered by Blogger.