বোর্ডের চুক্তি লঙ্ঘন করেছেন বিরাট

[pullquote align="normal"] [/pullquote]

ভারতীয় সমর্থককে দেশ ছেড়ে চলে যেতে বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র আক্রমণের মুখোমুখি বিরাট কোহলি। এর মধ্যেই ফের নেতিবাচক কারণে প্রচারমাধ্যমের শিরোনামে স্বয়ং কোহলি। আর তা উসকে দিয়েছেন বোর্ডের প্রভাবশালী এক কর্তা।ভারতীয় সমর্থক সরাসরি কোহলিকে জানিয়ে দিয়েছিলেন, তিনি ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের বদলে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ব্যাটসম্যানদেরই পছন্দ করেন। ক্ষুব্ধ কোহলি সঙ্গে সঙ্গেই তাকে ভারত ছাড়ার নিদান দেন। তার ‘লিভ ইন্ডিয়া’ কমেন্টই ঝড় তুলে দেয় ভার্চুয়াল জগতে। কোহলির অসহিষ্ণু মানসকিতার জন্য নেটিজেনদের একাংশ সমালোচনায় বিদ্ধ করে তারকা ব্যাটসম্যানকে।এর মধ্যেই বোর্ডের এক কর্তা সরাসরি কোহলির বিরুদ্ধে মন্তব্য করেন, যা নিয়ে পরিস্থিতি ফের ঘোরালো।ভারতীয় সমর্থককে দেশ ছেড়ে চলে যেতে বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র আক্রমণের মুখোমুখি বিরাট কোহলি। এর মধ্যেই ফের নেতিবাচক কারণে প্রচারমাধ্যমের শিরোনামে স্বয়ং কোহলি। আর তা উসকে দিয়েছেন বোর্ডের প্রভাবশালী এক কর্তা।ভারতীয় সমর্থক সরাসরি কোহলিকে জানিয়ে দিয়েছিলেন, তিনি ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের বদলে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ব্যাটসম্যানদেরই পছন্দ করেন। ক্ষুব্ধ কোহলি সঙ্গে সঙ্গেই তাকে ভারত ছাড়ার নিদান দেন। তার ‘লিভ ইন্ডিয়া’ কমেন্টই ঝড় তুলে দেয় ভার্চুয়াল জগতে। কোহলির অসহিষ্ণু মানসকিতার জন্য নেটিজেনদের একাংশ সমালোচনায় বিদ্ধ করে তারকা ব্যাটসম্যানকে।ভারতীয় সমর্থককে দেশ ছেড়ে চলে যেতে বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র আক্রমণের মুখোমুখি বিরাট কোহলি। এর মধ্যেই ফের নেতিবাচক কারণে প্রচারমাধ্যমের শিরোনামে স্বয়ং কোহলি। আর তা উসকে দিয়েছেন বোর্ডের প্রভাবশালী এক কর্তা।ভারতীয় সমর্থককে দেশ ছেড়ে চলে যেতে বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র আক্রমণের মুখোমুখি বিরাট কোহলি। এর মধ্যেই ফের নেতিবাচক কারণে প্রচারমাধ্যমের শিরোনামে স্বয়ং কোহলি। আর তা উসকে দিয়েছেন বোর্ডের প্রভাবশালী এক কর্তা।
জাতীয় স্তরের এক সংবাদপত্রে বোর্ডের এক কর্তা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ‘‘কোহলিকে বুঝতে হবে সমর্থকরা যদি অন্য দেশে চলে যায় তাহলে পুমার মতো কোনও সংস্থা ওর সঙ্গে ১০০ কোটি টাকার চুক্তি করবে না। বোর্ডের লভ্যাংশ মার খাবে, সেই সঙ্গে ক্রিকেটারদের বেতনও। নিজের মন্তব্য খতিয়ে দেখলেও বুঝতে পারবে বোর্ডের চুক্তিও হয়তো লঙ্ঘন করেছে নিজের বিবৃতির মাধ্যমে।’’ 
এখানেই থেমে যাননি বিসিসিআইয়ের ওই কর্তা, তিনি আরও বলেন, ‘‘পুমাকে সমর্থক করার জন্য ইংল্যান্ডে গিয়েও বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তি লঙ্ঘন করেছে কোহলি। ব্যক্তিগত এনডোর্সমেন্টের প্রচার করার তুলনায় ওর উচিত বোর্ডের সহযোগী সংস্থাগুলোর প্রতি ফোকাস করা। কোহলিএকজন দুর্দান্ত ক্রিকেটার। মানুষ হিসেবে ভাল হয়ে ওঠার এটাই সেরা সময়।’’
সম্প্রতি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর শেষ হয়েছে। এবার অস্ট্রেলিয়ার প্রস্তুতি। তার আগেই অযাচিত বিতর্কে জড়িয়ে বেশ সমস্যায় পড়েছেন বিরাট কোহলি।
[pullquote align="normal"] [/pullquote]
Powered by Blogger.