আদিবাসী কিশোরীর গণধর্ষণ!



মালদা, ২১ নভেম্বরঃ আদিবাসী এক কিশোরীকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল স্থানীয় দুই যুবকের বিরুদ্ধে ৷ ধর্ষিতা ওই কিশোরী বর্তমানে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন৷ সমস্ত বিষয়টি গাজোল থানায় মৌখিকভাবে জানানো হলেও এখনও পর্যন্ত লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়নি৷

ওই কিশোরীর মা জানান, তিন মেয়েকে নিয়ে তিনি স্বামীর ঘর ছেড়েছেন৷ গাজোলের একটি গ্রামে বাবার বাড়িতে থাকেন তাঁরা৷ গত পরশু রাতে স্থানীয় দুই যুবক তাঁর মেয়েকে তুলে নিয়ে যায়৷ খোঁজখবর নিয়ে গ্রামের মোড়ল জানতে পারেন স্থানীয় দুই যুবক তাঁর মেয়েকে অপহরণ করেছে৷ এক যুবককে পাকড়াও করে চাপ দিতেই সে একটি মোবাইলে ফোন করে৷ কিছুক্ষণের মধ্যেই একটি গাড়িতে করে মেয়েকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়৷ গোপনাঙ্গ থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় কিশোরীকে গাজোল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মালদা রেফার করে দেন৷ সমস্ত ঘটনা তাঁরা গাজোল থানায় মৌখিকভাবে জানিয়েছেন৷বুধবার পুলিশ মেয়ের সঙ্গে দেখা করতে আসবে বলেও জানান তিনি৷
Powered by Blogger.