মুখ্যমন্ত্রীর কনভয়ের দুর্ঘটনার কবলে পুলিশের গাড়ি

[pullquote align="normal"] [/pullquote]


মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কনভয়ের পেছনে থাকা পুলিশের একটি গাড়ি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে । আহত হয় পাঁচ পুলিশকর্মী।ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়ার ৬নম্বর জাতীয় সড়ক মুম্বাই রোডে সলপ ও নিবড়ার মাঝে। আচমকাই উল্টে যায় কনভয়ের পিছনে থাকা একটি পুলিশের গাড়ি। জখম পুলিশ কর্মীদের প্রথমে স্থানীয় একটি নার্সিংহোমে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে আন্দুল রোডের একটি বেসরকারি মাল্টিস্পেসালিটি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।সোমবার বিকেলে দক্ষিণেশ্বরের স্কাইওয়াক উদ্বোধন করতে নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রীর কনভয় রওনা দেয়। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সেই কনভয়ের পেছনে ছিলো ডব্লু বি ১২সি ১৪৪৩ নম্বরের একটি পুলিশের গাড়ি। সাঁতরাগাছি পার হয়ে ৬নম্বর জাতীয় সড়কে, নিবড়া মোড় পার করে সলপের দিকে যাওয়ার সময়ে লালবাড়ির কাছে পুলিশের গাড়িটির সামনে থাকা কনভয়ের একটি গাড়ি আচমকাই জোরালো ব্রেক কষে৷ ফলে পিছনে থাকা পুলিশের গাড়িটিও ব্রেক মারতে বাধ্য হয়৷ পিছনে থাকা অপর একটি গাড়ি ধাক্কা মারে পুলিশের গাড়িটিকে। সেই ধাক্কায় নিয়ন্ত্রন হারিয়ে উল্টিয়ে যায় পুলিশের গাড়িটি।দুর্ঘটনাগ্রস্থ পুলিশ গাড়িটির চালক সঞ্জীব মন্ডল বলেন, “সামনে থাকা গাড়িটির চালক প্রথম থেকেই খুব বাজে ভাবে গাড়ি চালাচ্ছিলেন, সলপের কাছাকাছি সামনের গাড়িটি আচমকা জোরে ব্রেক কষে”। সেইসময়ে তিনিও জোরে ব্রেক দেন, তখনই পিছনে থাকা একটি গাড়ি তাঁর গাড়িকে ধাক্কা দিলে তাঁর গাড়িটি উলটে যায় বলে জানান তিনি৷স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সামনের গাড়িটি আচমকা ব্রেক করার ফলে পিছনে থাকা পুলিশের গাড়িটি ব্রেক করলে পেছনে থাকা একটি গাড়ি ধাক্কা মারে পুলিশের গাড়িটিকে। সেই ধাক্কায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুটি পালটি খেয়ে উল্টিয়ে যায় পুলিশের গাড়িটি। গাড়িতে থাকা পাঁচ পুলিশ কর্মীর ২জন নিজে থেকে বেরিয়ে আসেন গাড়ি থেকে। অপর পুলিশ কর্মীদের দরজা খুলে গাড়ি থেকে বার করেন স্থানীয়রা। এই ঘটনায় সঞ্জীব মল্লিক, সতীনাথ ঘোষ, প্রসেনজিত আইচ, তুহিন কুমার মুখোপাধ্যায়, ও পরিতোষ মণ্ডল আহত হন। ভাগ্যক্রমে বড় দুর্ঘটনার হাত থেকে সকলে প্রাণে রক্ষা পান।
[pullquote align="normal"] [/pullquote]
Powered by Blogger.