সিঙ্গাপুর সফরে প্রধানমন্ত্রী

[pullquote align="normal"] [/pullquote]

আবার বিদেশ সফর করতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ৷ এবার যাবেন তিনি সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে৷ সামনের সপ্তাহেই তিনি ওই সফর শুরু করবেন বলে সরকারি সূত্রে জানা যায় ৷ সেখানে প্রধানমন্ত্রী মোদী যোগদান করবেন দু’টি অনুষ্ঠানে৷ তার মধ্যে একটি রিজিওনাল ইকোনমিক কো-অপারেশন পার্টনারশিপ ও আসিয়ান সম্মেলন৷ এই সম্মেলনগুলির ফাঁকে তিনি আলোচনা করবেন সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী লি হেসিয়েন লুং ও অন্য নেতাদের সঙ্গে৷প্রসঙ্গত, বিদেশ সফর নিয়ে বারবার বিরোধীদের খোঁচার মুখে পড়তে হয় নরেন্দ্র মোদীকে৷ বিদেশ সফর করে মোদী দেশবাসীর করের টাকা নষ্ট করেন বলেও অভিযোগ তোলা হয় বারবার৷ ফলে তিনি আবারও বিদেশ যাচ্ছেন, এই খবর সামনে আসায় নতুন করে সমালোচনা শুরু হয়েছে৷
যদিও বিজেপির একটা অংশের বক্তব্য, মোদী-জমানায় বিশ্বের কাছে ভারতের মাথা উঁচু হয়েছে৷ বিশ্বের বিভিন্ন ক্ষেত্রে ভারত এগিয়েছে৷ আর তা হয়েছে মোদীর বিদেশ সফরের জন্য৷ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে মোদীর ভালো সম্পর্কের জন্য দেশ লাভবান হচ্ছে৷ এবারের সফরেও মোদী ভারতের সঙ্গে অন্যদেশের সম্পর্ক আরও মজবুত করবেন বলেই আশা বিজেপি শিবিরের ৷ সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী-সহ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, অষ্ট্রেলিয়ার রাষ্ট্রনেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেবন তিনি৷ ১৫ নভেম্বর আসিয়ান নেতাদের জন্য আয়োজিত ব্রেকফাস্টেও উপস্থিত থাকবেন মোদী৷
তার আগের দিন ১৪ নভেম্বর ফিনটেক ফেস্টিভ্যালে বক্তৃতা করবেন৷ সেখানে প্রায় ৩০ হাজার মানুষের উপস্থিত থাকার কথা৷ সেখানে ভারতের ৪০০ জন প্রতিনিধি উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গিয়েছে৷ ফিনটেক সংস্থাগুলির সঙ্গে আসিয়ান ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলির যোগাযোগের ব্যবস্থাও তিনি করবেন৷
এছাড়াও একাধিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার কথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর৷ ১৫ নভেম্বর পর তিনি সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফিরবেন বলে জানা গিয়েছে ৷
[pullquote align="normal"] [/pullquote]
Powered by Blogger.