জলের প্ল্যান্টে তিন জার তাজা বোমা


অর্ক রায়, মালদহ: পরিত্যাক্ত আর্সেনিক মুক্ত পানীয় জলের প্ল্যান্ট থেকে তিন জার তাজা বোমা উদ্ধারের ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকায়।ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাতে মালদহের কালিয়াচক থানার সুজাপুর নাজিরপুর চামা গ্রামে। এখানে বোমা গুলির হদিশ পায় পুলিশ। শুক্রবার জেলা পুলিশ বোম স্কোয়াড ও দমকল বাহিনীর যৌথ প্রচেষ্টায় উদ্ধার বোমা গুলি নিষ্কৃয় করা হয়। এই ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাত থেকে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়। পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমেছে।

উল্লেখ্য, গত প্রায় দুই মাস আগে কালিয়াচক থানা এলাকায় একটি আম বাগানের মধ্যে থেকে পুলিশ উদ্ধার করে প্রচুর তাজা বোমা। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই গোপন সুত্রেরখবর পেয়ে বৃহস্পতিবার রাতে ফের উদ্ধার হল গোপন ডেরায় মজুত করে রাখা তাজা বোমা। খবর পেয়ে এদিন রাতে কালিয়াচক থানার পুলিশ হানা দেয় সুজাপুর পঞ্চায়েতের নাজিরপুর চামা গ্রামে। সেখানে একটি পরিত্যাক্ত আর্সেনিক মুক্ত পানীয় জলের প্ল্যান্টে তল্লাশি চালায়। উদ্ধার হয় তিন জার তাজা বোমা। স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে গত প্রায় দুই বছর ধরে ওই পানীয় জল প্রকল্পটি বিকল হয়ে পড়ে রয়েছে। আর সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়েই কিছু দুষ্কৃতি সেখানে বোমা মজুত করে রাখে।

পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে,ওই জার গুলি থেকে উদ্ধার বোমা গুলি সকেট বোমা। দড়ি দিয়ে মোড়ানো। উদ্ধার হয়েছে মোট ৪২ টি বোমা। শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থলে পৌঁছান ডিএসপি (হেড্-কোয়াটার্স ) বিপুল মজুমদার সহ কালিয়াচক থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। বোম স্কোয়ার্ডের কর্মী ও দমকল। তারা বোমা গুলি উদ্ধার করে নির্জন এলাকায় নিয়ে গিয়ে নিষ্কৃয় করে। ঘটনায় অভিযুক্ত দুষ্কৃতিদের খোঁজে তদন্তে নেমেছে কালিয়াচক থানার পুলিশ।
Powered by Blogger.