খাবার দিয়ে রান্নার জ্বালানি গ্যাস তৈরী বাংলায়

[pullquote align="normal"] [/pullquote]

কাকদ্বীপের প্রতাপাদিত্য গ্রাম পঞ্চায়েতের অভিনব উদ্যোগ। উচ্ছিষ্ট খাবার দিয়ে রান্নার জ্বালানি গ্যাস তৈরী হচ্ছে। বাড়ি, হোটেল, রেস্তোরাঁর ফেলে দেওয়া উচ্ছিষ্ট  খাবারকে কাজে লাগিয়ে রান্নার গ্যাস তৈরির অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে প্রতাপাদিত্য গ্রাম পঞ্চায়েত।এই পঞ্চায়েত এর তৈরী পরিবেশবান্ধব জ্বালানি গ্যাস দিয়ে প্রতিদিন ৪০ থেকে ৫০ জনের সকাল, দুপুর রাতে রান্নাবান্না হয়।  পাশাপাশি লোডশেডিং হলে সেই গ্যাস দিয়ে জেনারেটার এর সাহায্যে একাধিক ল্যাম্প ও পাখা জ্বালানো হয় । কাকদ্বীপ মহকুমা শহরাঞল ও গ্রামীণ এলাকায় ২১ টি সংসদ নিয়ে প্রতাপাদিত্য গ্রাম পঞ্চায়েত এর কঠিন, তরল, বর্জ্য প্রকল্পের একটি অংশের উচ্ছিষ্ট  খাবার দিয়ে রান্নার গ্যাস তৈরী। এই পঞ্চায়েত এর গণেশপুর পঞ্চম ঘেরি এলাকায় এক বিঘা জমির উপর এই বর্জ্য প্রকল্পটি।

 শহর ও গ্রামীণ এলাকার বসত বাড়ির বাইরে প্রকল্পটির অবস্থান ও তার গা দিয়ে চলেছে কালনাগিনী নদী। এই প্রকল্প মধ্যে একাধিক মহিলা পচনশীল ও অপচনশীল বর্জ্য পদার্থ বাছাই করে নির্দিষ্ট জায়গায় রাখেন। সেখান থেকে উচ্ছিষট খাবারের অংশও গোলাকৃতি চৌবাচচার   মধ্যে ফেলে দেওয়া হয়। সেখান থেকে এই গ্যাস পাইপ এর মাধ্যমে রান্না ঘরে গ্যাস জ্বালিয়ে রান্নার পাশাপাশি জেনারেটারের মাধ্যমে আলো ও পাখা চালানো হয়। পাশাপাশি পাইপ লাইন এর মাধ্যমে গ্যাস পরিকাঠামো আরো বড়ো আকারে করার চেষ্টা চলছে। এর জন্য এলাকার বিধায়ক তথা সুন্দরবন মন্ত্রীর প্রচেষ্টায় অর্থের ও সংস্থান হয়ে গেছে খুব শীঘ্রই তার কাজ শুরু হয়ে যাবে। তখন এই উচ্ছিষ্ট  খাবারের তৈরী জ্বালানি গ্যাস সিলিন্ডার এর মাধ্যমে কাকদ্বীপ বিধানসভা এলাকার মিড ডে মিল স্কুল গুলিতে স্বল্প দামে তা সরবরাহ করা হবে।
[pullquote align="normal"] [/pullquote]
Powered by Blogger.