মেট্রো সংখ্যা হ্রাস পাচ্ছে কলকাতা মেট্রো লাইনে





উৎসবের মরশুম কাটিয়ে ধীরে ধীরে খুলতে শুরু করেছে কলকাতার অফিসগুলি৷ আবার ফের ছন্দে ব্যাঘাত ঘটার সম্ভাবনা তৈরি করলো কলকাতার মেট্রো পরিষেবা৷ সোমবার থেকেই তিলোত্তমার লাইফলাইনে কোপ বসাচ্ছে কলকাতা মেট্রো কর্তৃপক্ষ ৷ আগে সপ্তাহের কাজের দিনে ৩০০টি করে মেট্রো চলত৷ এখন সেই সংখ্যা কমিয়ে দেওয়া হচ্ছে৷ এখন থেকে রোজ ২৮৪টি করে মেট্রো চলবে৷

মেট্রো কর্তৃপক্ষের সূত্রে জানা গিয়েছে, এই ব্যবস্থা চিরকাল নয় ৷ এটা চলবে আগামী ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ৷ মাসখানেকের মধ্যে মহানায়ক উত্তম কুমার (টালিগঞ্জ) মেট্রো স্টেশন সংলগ্ন রেলইয়ার্ডের খোলনলচ বদলে ফেলা হবে৷ সেই কারণেই ট্রেনের সংখ্যা কমিয়ে দেওয়া হচ্ছে৷ তবে শনি ও রবিবার পরিষেবা আগের মতোই থাকবে৷ কিন্তু শনি-রবিবার মেট্রোর যাত্রী সংখ্যা অনেক কম থাকে৷ বরং অন্যদিন ভিড়ের চাপে মেট্রোয় ওঠাই দায় হয়ে যায়৷ ফলে দৈনিক ১৬টি ট্রেন কমে গেলে, পরিস্থিতি ভয়াবহ হয়ে উঠবে বলে অনেকে আশঙ্কা করছেন৷যদিও মেট্রো সূত্রে খবর, কর্তৃপক্ষ পরিষেবা স্বাভাবিক রাখতে বদ্ধপরিকর৷ তাই ট্রেনের সংখ্যা কমলেও অফিস টাইমে ট্রেনের সময়ের ব্যবধান একই রাখতে মরিয়া তারা৷ কিন্তু শেষপর্যন্ত কী হবে, তা এই বাস্তবায়নের আগে বলা সম্ভব নয় বলেই মনে করছে মেট্রো কর্তৃপক্ষ৷ তবে পরিকাঠামোর মানোন্নয়নের এই কাজ শেষ হয়ে যাওয়ার পর পরিস্থিতি আরও ভালো হবে বলেই তাঁদের আশা৷ মেট্রোর দাবি, এর পর কাজের দিনে ৩০০-র থেকেও অনেক বেশি চালানো সম্ভব হবে৷ কীভাবে তা সম্ভব, সেই ব্যাখ্যাও মিলেছে তাদের কাছ থেকে৷ তাদের দাবি, নেতাজি ও মহানায়ক উত্তর কুমার মেট্রো স্টেশনের মাঝখানে একটি বাঁক আছে৷ সেখানে ট্রেনের গতি ২০ কিমি প্রতি ঘণ্টা রাখতে৷ কিন্তু এই কাজ শেষ হয়ে যাওয়ার পর ঘণ্টায় ৫৫ কিমি গতিবেগে ওই জায়গা দিয়ে ট্রেন চলতে পারবে৷ ফলে সময় অনেকটাই কমবে৷এছাড়া রেল ইয়ার্ডের ওয়াই সাইডিংয়েরও বদল করা হবে৷ সেখানে নতুন একটি লাইন যোগ করা হবে৷ ফলে সাইডিংয়ে দ্বিমুখী ট্রেন চলাচল অনেক সহজ হবে৷ তাছাড়া সাইডিংয়ে এখন থেকে একটি রেক রাখার ব্যবস্থা করা হবে৷ ফলে জরুরি প্রয়োজনে ওই রেক চালানো হবে জানালো মেট্রো কর্তৃপক্ষ।
Powered by Blogger.