"ধোনির ক্যারিয়ার শেষ নয়"

[pullquote align="normal"] [/pullquote]
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে টি-২০ সিরিজ থেকে বাদ। তার পর থেকেই মহেন্দ্র সিং ধোনিকে নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। ভারতীয় টি-২০ দল থেকে এমএসডির বাদ পড়া মানে বড় ব্যাপার। আর তাই সিঁদুরে মেঘ দেখছেন ধোনির ভক্তকূল। তারা কার্যত ধরেই নিয়েছিলেন, টি-২০ ক্রিকেটে ধোনি-ম্যাজিকের যুগ হয়তো এবার শেষ। ভারতীয় ক্রিকেটে এবার নতুন যুগ আসন্ন। তবে ধোনির সমর্থকদের এখনই আশঙ্কা করার কোনও প্রয়োজন নেই। তাদের দুঃশ্চিন্তা কমাতে জাতীয় নির্বাচক কমিটির প্রধান এমএসকে প্রসাদ বার্তা দিয়ে রাখলেন। আর তাতে তিনি ভারতীয় ক্রিকেটে এই মুহূর্তে ধোনির অবস্থান স্পষ্ট করে দিলেন।
উইন্ডিজের বিরুদ্ধে রোহিত শর্মাকে ক্যাপ্টেন নির্বাচিত করা হয়েছে। উইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি-২০ স্কোয়াডে দুজন কিপার হিসাবে রাখা হয়েছে ঋষভ পন্থ ও দীনেশ কার্তিককে। বিশ্রামে পাঠানো হয়েছে বিরাট কোহলি ও মহেন্দ্র সিং ধোনিকে। নির্বাচক কমিটির পক্ষ থেকে স্পষ্ট জানানো হয়েছে, ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক ধোনিকে বাদ দেওয়া হয়নি। তাকে বিশ্রামে পাঠানো হয়েছে। নির্বাচক কমিটির প্রধান এমএসকে প্রসাদ জানিয়েছেন, ''ধোনির টি-২০ কেরিয়ার নিয়ে প্রশ্ন ওঠার কথা নয়। আমরা ওকে বিশ্রামে পাঠিয়েছি। আসলে সেকেন্ড উইকেটকিপার প্রস্তুত রাখার কাজটা আমরা সেরে রাখতে চাইছি। সে জন্য ধোনিকে এই সিরিজে বিশ্রামে রেখে ঋষভ পন্থকে সুযোগ দেওয়া হচ্ছে।''
চলতি বছর মাত্র সাতটি টি-২০ ম্যাচ খেলেছেন ধোনি। জানুয়ারিতে ভারতীয় দল অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজে নামবে। ফলে তার আগে ধোনির দেশের হয়ে খেলার মতো কোনও ম্যাচ নেই। তা ছাড়া বিজয় হাজারে ও দেওধর ট্রফিতেও ধোনির খেলার আর সুযোগ নেই। অর্থাৎ, আগামী মাস তিনেক ধোনিকে ক্রিকেটের বাইরেই থাকতে হবে।
[pullquote align="normal"] [/pullquote]
Powered by Blogger.