Breaking: বাবা-মায়ের হাতেই বলি সদ্যোজাত!

[pullquote align="normal"] [/pullquote]



মৃন্ময় নস্কর ,দক্ষিন ২৪ পরগণা : 'বাবা-মা-সন্তান'।এই সম্পর্কই বিশ্বের মধুর সম্পর্ক। তবে এই মধুর সম্পর্কে বাবা পাষন্ড হলেও, মা যে পাষন্ড হয় তা না শোনা যায় খুবই কম। সাধারণত মায়েরাই তাদের বাচ্চাদের আগলে বেঁচে থাকে। আর মা যদি পাষন্ড হয়, তখন আমাদের বিবেকে দংশন করে। ঠিক এরকমই এক পাষন্ডের কাহিনী ধরা পড়ল দক্ষিণ ২৪ পরগনার জয়নগর এলাকায়।

বাবা-মায়ের হাতেই বলি হতে হল এক সদ্যোজাতকে।
সদ্যোজাত শিশু কন্যাকে খুনের অভিযোগ উঠল বাবা মায়ের বিরুদ্ধে ঘটনাটি ঘটেছে জয়নগর থানা এলাকার দক্ষিণ বারাসাত উত্তর কালিকাপুর নতুন পল্লীতে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার দুপুরে সঞ্জয় মন্ডল নামে এক ব্যক্তির দ্বিতীয়বার কন্যা সন্তান হয় ১৫ দিন আগে। এলাকার বাসিন্দাদের অভিযোগ গত তিনদিন ধরে ওই সদ্যোজাতো শিশুটি নিমুনিয়া রোগে ভুগছিল। কন্যা সন্তানটি অসুস্থ থাকায় তার বাবা মা কোন ডাক্তার দেখাতে না নিয়ে গিয়ে বাড়িতে ফেলে রাখে এবং বাড়িতে ফেলে রাখার পর বৃহস্পতিবার দুপুরে হঠাৎ ওই বাচ্চার মুখ থেকে ফেনা বের হতে দেখে এলাকার কিছু মানুষ। বৃহস্পতিবার দুপুরের পর সে বাচ্চাটি হঠাৎ মারা যায়। মারা যাওয়ার পর বাচ্চার বাবা মা কাউকে কিছু না জানিয়ে একা একা একটি ব্যাগে করে বাচ্চাটি নিয়ে গিয়ে একটি খালের পাড়ে কবর দিয়ে চলে আসে।

এলাকার লোকজন দের অভিযোগ যে বিনা চিকিৎসায় দ্বিতীয় বার কন্যা সন্তান হওয়ায় তাকে জোর করে মেরে ফেলা হয়েছে । এই অভিযোগ এনে তারা জয়নগর থানার পুলিশকে খবর দেয় ।জয়নগর থানার পুলিশ আসার আগেই ওই সদ্যোজাত সন্তানের বাবা-মা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে এলাকার বাসিন্দাদের সাথে কথাবার্তা বলার পর পুলিশ ওই খালপাড়ে যায় গিয়ে দেখে যে একটি নতুন কবর দেওয়া আছে এর পর পুলিশের তখন সন্দেহ হয় এবং সেই কবর থেকে সদ্যজাতো কন্য সন্তানটিকে পুলিশ উদ্ধার করে। উদ্ধার করা শিশুকন্যার মৃতদেহ পদ্মহাট হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় । তবে পুলিশ সূত্রের খবর যে ওই বাচ্চাটি কন্যা সন্তান এবং গত ১৫ দিন বাচ্চাটির বয়স এবং পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই ঘটনার এখনো পর্যন্ত কোন অভিযোগ দায়ের করা হয়নি । পুলিশ মৃতদেহটি ময়নাতদন্তে পাঠাবে এবং দেহটি ময়নাতদন্তের পর পুরো ঘটনাটি পরিষ্কার হবে বলে জানিয়েছে ।
[pullquote align="normal"] [/pullquote]
Powered by Blogger.