প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করতে মিয়ানমারের প্রতিনিধি দল ঢাকায়

[pullquote align="normal"] [/pullquote]



সাইফুল আলম, ঢাকা, বাংলাদেশ:রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করতে তিন দিনের সফরে রোববার (২৮ অক্টোবর) মধ্যরাতে ঢাকায় এসেছে মিয়ানমারের একটি প্রতিনিধি দল। তারা বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে প্রত্যাবসান নিয়ে জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রপের বৈঠকে অংশ নেবেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, মিয়ানমারের প্রতিনিধি দলটি রোহিঙ্গা পরিস্থিতি সরেজমিনে দেখতে কক্সবাজারেও যাবে। ইতোমধ্যে আট হাজার রোহিঙ্গার নামের তালিকা সম্পর্কে সম্মতি দিয়েছে মিয়ানমার। জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপে বাংলাদের পক্ষে নেতৃত্ব দেবেন পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক এবং মিয়ানমারের পক্ষে দেশটির পররাষ্ট্র সচিব মিন্ট থোয়ে।

রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রপের এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে মঙ্গলবার দশটায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন মিন্ট থোয়ে।

বৈঠকে মিয়ানমার প্রতিনিধি দলের কাছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের আরো একটি তালিকা হস্তান্তর করবে ঢাকা। যেখানে পররাষ্ট্র, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ সরকারের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন।

এর আগে গত মে মাসে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের লক্ষ্যে যৌথ ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে যোগ দিতে ঢাকায় এসেছিল মিয়ানমারের প্রতিনিধি দল। সেই প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বেও ছিলেন মিন্ট থোয়ে।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে গত ৯ আগস্ট পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলীর নেতৃত্বে বাংলাদেশের একটি প্রতিনিধি দল মিয়ানমার সফর করেন। সে সময় তাঁরা রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসন নিশ্চিত করতে রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের আবাসন সুবিধা, চলাফেরা ও জীবনযাত্রাসহ প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ার অগ্রগতিও পর্যবেক্ষণ করেন।

এছাড়া বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল মিয়ানমারে স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চির সঙ্গে বৈঠক করে প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া শুরুর উপর জোর দেন।

প্রসঙ্গত, গত বছরের আগস্ট থেকে এ পর্যন্ত আট লাখের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। আর এর আগে কয়েক দশক ধরে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে আরো প্রায় চার লাখ রোহিঙ্গা।
..........

[pullquote align="normal"] [/pullquote]
Powered by Blogger.