সিভিক ঘুৃষ! প্রতিবাদে বেধড়ক মার প্রতিবন্ধীকে




স্নেহা  চক্রবর্তী, বীরভূম সিভিকদের ঘুষ নেওয়ার প্রতিবাদে মারধর করা হয় এক প্রতিবন্ধী যুবককে। ঘটনাটি ঘটেছে নলহাটি থানার কূরূমগ্রামে।

জানা গিয়েছে, প্রতিবন্ধী যুবক শ্রীকান্ত মন্ডল ,সিভিকের বাবা মদ বিক্রি করে এছাড়া সিভিকরা ঘুষ নেওয়ার প্রতিবাদ করার ফলে বেধড়ক মারধর করার অভিযোগ উঠলো সিভিক ভোলেনটিয়ার গুড়ু সিং, মৃণাল কান্তি সাহা, পিন্টু দাস সহ বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে ।এমনি ঘটনা ঘটেছে গত বুধবার ভোরে নলহাটি থানার কূরূমগ্রামে । ওই দিন ভোর চারটে নাগাদ গুড্ডু সিং শ্রীকান্ত মণ্ডলের বাড়ী যায়, ও তাকে ডাকে সিভিকরা । এর পর তাকে বেধড়ক মারধোর করে । বাড়ীর সামনে সিসি ক্যামেরায় মারধোর এর ছবি উঠছে বুঝতে পেরে , শ্রীকান্তকে অন্য জায়গায় সরিয়ে নিয়ে আবারো মারধোর করে । সকালে আহত প্রতিবন্ধী ও তার স্ত্রী নলহাটি থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে তাদের বাঁধা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ ।আহত প্রতিবন্ধীকে রামপুরহাট জেলা হাসপাতালে ভর্তি করে তার পরিবার ।সুস্থ হয়ে ওই সিভিকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাতে রামপুরহাট মহকুমা পুলিস আধিকারিকের দারস্থ হন ।পাশাপাশি স্বামীকে মারধোর করার জন্য নলহাটি থানায় ডাক যোগে অভিযোগ জানিয়েছেন তার স্ত্রী ।এছাড়া মুখ্যমন্ত্রী ও মানবাধিকার কমিশনকেও ডাকযোগে অভিযোগ জানিয়েছেন তার স্ত্রী । ঘটনার পর থেকে আতঙ্কিত শ্রীকান্ত মণ্ডলের পরিবার ।তারা বিচার চায় । এক জন প্রতিবন্ধীকে কি সিভিক মারধোর করতে পারে । যখন তাদের কাছে শ্রীকান্ত মণ্ডলের নামে কোন ওয়ারেন্ট নেই তা স্বত্বেও কি করে মারধর করতে পারে । তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে সাধারন মানুষের মধ্যে । শ্রীকান্ত মণ্ডলের স্ত্রীর ডাকযোগে অভিযোগ পেয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বলে জানান নলহাটি থানার আধিকারিক ।
Powered by Blogger.