ধূপগুড়ি ধর্ষণ কান্ডে সরব আদিবাসী পাড়া

[pullquote align="normal"] [/pullquote]


আসানসোলঃ রানীগঞ্জের আমরাশতা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বাসরা আদিবাসী পাড়ার বাসিন্দারা রবিবার সরব হলো ধুপগুড়ি ধর্ষণ কাণ্ডে দোষীদের গ্রেফতার ও উপযুক্ত শাস্তির দাবিতে। এদিন তারা সিধু কানু মঞ্চ লাগোয়া এলাকায় এলাকার পুরুষ মহিলা দের সঙ্গে নিয়ে ধুপগুড়ি কান্ডের ধর্ষকের কুশপুত্তলিকা দাহ করে। দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে ও তাদের উপযুক্ত শাস্তির দাবিতে সরব হয়। এদিন বাসরা অঞ্চলের আদিবাসী মহিলা পুরুষ ব্যানার-পোস্টার সঙ্গে নিয়ে বারংবার ঘটে চলা ধর্ষণের ঘটনা ও আদিবাসী সমাজের ওপর নির্যাতনের ঘটনার নিন্দা করে প্রশাসনকে হুঁশিয়ারি দিয়ে ধুপগুড়ি ধর্ষণকাণ্ডের ও পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে আদিবাসী সমাজের ওপর নারকীয় অত্যাচার এর ঘটনা ঘটার পরও প্রশাসন নিরব থাকছে এই অভিযোগ তুলে সরব হয়।

তাদের দাবি আদিবাসী সমাজের অত্যাচারিদের শাস্তি দিতে ও নানান সমস্যা সমাধানে কোন বুদ্ধিজীবী সংগঠনকে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি ।পাশাপাশি ধুপগুড়ি ও কাসমুন্ডির ঘটনাকে নির্ভয়া কাণ্ডের ঘটনার সঙ্গে তুলনা টেনে আদিবাসী সমাজ এর জন্য কেউ এগিয়ে আসছে না বলে দাবি করে, তাদের লড়াই তাদেরই লড়তে হবে বলে জানান দেন। এদিন বাসরা এলাকা প্রদক্ষিণ করে ধর্ষকের কুশপুত্তলিকা সঙ্গে নিয়ে স্লোগান তোলেন তারা দোষীদের গ্রেপ্তারের ও উপযুক্ত শাস্তির।
[pullquote align="normal"] [/pullquote]
Powered by Blogger.